ডেঙ্গু প্রতিরোধে খুবি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন হলে ফগার মেশিন দিয়ে মশক নিধন অভিযান পরিচালনা

ডেঙ্গু প্রতিরোধে আজ ৩১ জুলাই ২০১৯ খ্রি. তারিখ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের বিভিন্ন আবাসিক হলে ফগার মেশিন দিয়ে মশক নিধন অভিযান পরিচালনা শুরু করা হয়েছে। প্রথমে খানজাহান আলী হল, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা হল, অপরাজিতা হল এবং বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে মশক নিধন অভিযান পারিচালনা করা হয়। এছাড়াও শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনসহ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে মশক নিধনে এ অভিযান চালানো হয়। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস, হলের সহকারী প্রভোস্ট এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ এ সময় উপস্থিত থেকে মশক নিধন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন। ফগার মেশিন দিয়ে মশক নিধনে সহায়তার জন্য উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেককে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। এদিকে প্রত্যেক হলের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় পরিস্কার পরিছন্নতা বজায় রাখা এবং মশক নিধনের কার্যক্রম পরিচালনার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আবাসিক হলের ছাত্র-ছাত্রীদের ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয় বিষয় সচেতন করার জন্য বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আজ রাত ১০ টায় খানজাহান আলী হলে নিবাসী ছাত্রদের মাঝে এ বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টিতে  হল প্রশাসনের পক্ষ থেকে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে বলে প্রভোস্ট প্রফেসর ড. সমীর কুমার সাধু জানান।