সাইক্লোন ফনি সতর্কতায় খুবিতে প্রস্তুতিমূলক জরুরীসভা

 মেডিকেল টিম গঠন, বিএনসিসিসহ 

স্বেচ্ছাসেবীদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ

তীব্রঘূর্ণিঝড় ফনির সম্ভাব্য আঘাতে ক্ষয়ক্ষতির ঝুঁকি হ্্রাস এবং দুর্যোগোত্তর ত্রাণ ও উদ্ধার তৎপরতাসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে সতর্কতামূলক প্রস্তুতি সর্ম্পকিত এক জরুরী সভা উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামানের নির্দেশনায় আজ ২ মে, বৃহস্পতিবার, বিকেল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ। সভায় আসন্ন ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় ফনির উপকূলে আঘাত হানার আশংকার পরিপ্রেক্ষিতে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় করণীয় এবং দুর্যোগোত্তর পরিস্থিতে কী পদক্ষেপ নেওয়া দরকার সেসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস অবহিত করেন যে, কর্তৃপক্ষের নির্দেশনায় ইতোমধ্যে একাডেমিক এবং আবাসিক হলগুলোর ব্যাপারে যথাযথ প্রাকপ্রস্তুুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধান ও প্রভোস্টদের অনুরোধ করা হয়েছে। স্ব স্ব হলের প্রভোস্ট হলে ঝড়ের সময় নিরাপদে থাকতে শিক্ষার্থীদের সতর্ক করার ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। যানবাহনগুলো নিরাপদ জায়গায় রাখা হবে। ছাত্র বিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমনের নেতৃত্ব ও নির্দেশনায় কাজ করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনসিসির সেনা ও নেভাল ইউনিট, যুব রেড ক্রিসেন্ট এবং রক্তদাতা সংগঠন বাঁধনসহ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলোকে প্রস্তুত রাখারও  নির্দেশনা দেওয়া হয়। দুর্যোগকালে এবং দুর্যোগোত্তর চিকিৎসা সেবার প্রয়োজনে প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ কানিজ ফাহমিদার নেতৃত্বে একটি মেডিকেল টিম গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ২টি এ্যাম্বুলেন্স সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়।  এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল বিভাগ এবং এস্টেট ও নিরাপত্তা শাখাকে দুর্যোগোকালীন ও দুর্যোগোত্তর পরিস্থিতি মোকাবেলায় সংশ্লিষ্ট স্ব স্ব ক্ষেত্রে অধিকতর সতর্ক থাকার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়। সভার সভাপতি ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ বলেন ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় ফনির সম্ভাব্য আঘাত এবং ক্ষয়ক্ষতির ব্যাপারে প্রাকপ্রস্তুতি থাকাটাই উত্তম। তবে মনে রাখতে হবে  দুর্যোগকালীন এবং দুর্যোগোত্তর সবারই  দায়িত্ব আপনা আপনিই অর্পিত হয় এবং এসময় সবাইকে এগিয়ে এসে সহায়তার হাত বাড়াতে হয়। তিনি বলেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়েই কেবল নয় আমরা প্রয়োজনে যে কোনো পরিস্থিতিতে এর বাইরেও সহযোগিতার  হাত সম্প্রসারিত করতে প্রস্তুত। সভায় প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শাখা প্রধানবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় তাৎক্ষণিক সেবা ও সহযোগিতার পাওয়ার জন্য কয়েকটি জরুরী মোবাইল নম্বরে যোগাযোগের অনুরোধ করা হয়। এর মধ্যে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর খান গোলাম কুদ্দুস (মোবাইল নম্বর ০১৭১১-৪৮২৬৫৬), ছাত্রবিষয়ক পরিচালক প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমন (মোবাইল নম্বর-০১৭১৮-০৭৯৬১৬), প্রধান প্রকৌশলী (চলতি দায়িত্ব) ইঞ্জিঃ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক(০১৭১১-২৮০২৭০), প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ কানিজ ফাহমিদা (মোবাইল নম্বর -০১৭১১-৪৫৮১৮৪) ও মেডিকেল টিমের সদস্য ডাঃ অর্চিস্মান দেবনাথ (মোবাইল নম্বর-০১৭১৬-১৫৩৯০১), ডাঃ মামুনুর রশীদ (০১৭১২-৭৫৩৩৭৫), ডাঃ গৌতম রায় (০১৭১১-৮৩০৯৪২), ডাঃ সাঈদ আফতাব (০১৭৮৭-৭৭১৩৭৫), উপ- রেজিস্ট্রার এস্টেট কৃষ্ণ পদ দাস (মোবাইল নম্বর-০১৭১১-৫৭৫০০৮), নিরাপত্তা তত্ত্ববধায়ক মোঃ নাজিমুদ্দিন বাবু (০১৭১১-৩৪৩০০৪)।