বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়ায় আনন্দ উৎসব ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন


আজ ২৫ নভেম্বর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদ্যাপন ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আনন্দ উৎসব পালন উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। সকাল সাড়ে ১১ টায় নগরীর শিববাড়ির মোড়ে বেলুন উড়িয়ে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের উদ্বোধন করেন। এর পরপরই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আনন্দ শোভাযাত্রা শিববাড়ি মোড় থেকে উপাচার্যের নেতৃত্বে শুরু হয়ে শেখপাড়া মোড়ে গিয়ে শেষ হয়। অপরদিকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শোভাযাত্রাটি নগরীর শেখপাড়া মোড় থেকে শুরু হয়ে রয়েল চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে উপাচার্য এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আনন্দ শোভাযাত্রা ও বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শোভাযাত্রায় অংশ নেওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। শোভাযাত্রায় ট্রেজারার প্রফেসর সাধন রঞ্জন ঘোষ, ডিনবৃন্দ, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত), ডিসিপ্লিন প্রধান, ছাত্রবিষয়ক পরিচালক, প্রভোস্টসহ বিভাগীয় প্রধান এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অংশ নেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষ্যে বাদ যোহর বিশ্ববিদ্যালয় জামে মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বিকেল ৪ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তমঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টায় শহীদ মিনার চত্ত্বর, অদম্য বাংলা ও কটকা স্মৃতিসৌধে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও ক্যাম্পাসে আলোকসজ্জা।