খুবির এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের ৩ কোটি ৩০ লাখ টাকার ইমপ্রুভমেন্ট প্লান উপস্থাপন, “সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে উচ্চশিক্ষার গুণগতমান বৃদ্ধির কার্যক্রম এগিয়ে নেওয়া সম্ভব” :উপাচার্য


খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের পোস্ট সেলফ এসেসমেন্ট ইমপ্রুভমেন্ট প্লান শীর্ষক এক কর্মশালা আজ ৫মার্চ বেলা ১২ টায় আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের এক্সটেনশন এন্ড কম্যিউনিকেশন ল্যাবে অনুষ্ঠিত হয়। ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. সরদার শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। তিনি বলেন উচ্চশিক্ষার গুণগতমান অর্জনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মশালার মাধ্যমে আমরা উপকৃত হচ্ছি। মানোন্নয়নের বিষয়ের সাথে আর্থিক বিষয় যেমন জড়িত, তেমনি সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা, মানসিকতার পরিবর্তন, সুসমন্বিত উদ্যোগও কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে। মান্নোয়নের কার্যক্রমকে ত্বরান্বিত করতে পারে। তিনি এ প্রসঙ্গে প্রত্যেক ডিসিপ্লিনে গবেষণা ফোরাম, ওয়েব সাইট পরিচালনা ও আপডেট করা, কেন্দ্রীয় গবেষণাগারকে সমৃদ্ধ করে সেখান থেকে গবেষণা কার্যক্রমের সুবিধা গ্রহণসহ বিভিন্ন বিষয় উল্লেখ করে শিক্ষকবৃন্দকে স্ব স্ব ডিসিপ্লিনের উন্নয়নে প্রকল্প পেশ এবং সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নয়ন প্রচেষ্টার আহবান জানান। তিনি ডিসিপ্লিনের উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্ভব সহায়তার আশ্বাস দেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জীববিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর এ কে ফজলুল হক, আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. আহমেদ আহসানুজ্জামান। অনুষ্ঠানে পাওয়ার পয়েন্টে এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের পোস্ট সেলফ এসেসমেন্ট ইমপ্রুভমেন্ট প্ল্যান উপস্থাপন করেন এসএ কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. মোঃ মনিরুল ইসলাম। তিনি এগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়নে আগামী চার বছরের জন্য প্রায় ৩ কোটি ৩০ লাখ টাকার ইমপ্রুভমেন্ট প্ল্যান উপস্থাপন করেন। এই প্ল্যানের মধ্যে অবকাঠামো উন্নয়ন, যন্ত্রপাতি, উপকরণ সংগ্রহ, প্রশিক্ষণ, কর্মশালা, সেমিনার, ল্যাবে লোকবল নিয়োগসহ বিভিন্ন বিষয় অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। অনুষ্ঠানে জীববিজ্ঞান স্কুলের ফার্মেসি ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, সেলফ এসেসমেন্ট কমিটির প্রধান প্রফেসর ড. মোহাম্মদ বশির আহম্মেদ, আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. সমীর কুমার সাধু, এসএ কমিটির সদস্যবৃন্দ এবং সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালাটি সঞ্চালনা করেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক জয়ন্তী রায়।