খুবিতে বিশ্ব নগর পরিকল্পনা দিবস উদযাপন


Khulna University photo .doc

পরিকল্পিত নগরায়নের প্রধান বাঁধা চিহ্নিত
করে তার প্রতিকার করা জরুরী: উপাচার্য

আজ ২৮ নভেম্বর ২০১৭ খ্রি. তারিখ দুপুরে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও গ্রামীণ পরিকল্পনা ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে এবং বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স (বিআইপি) এর সহযোগিতায় বিশ্ব নগর পরিকল্পনা দিবস-২০১৭ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয়। এবারের বিশ্ব নগর পরিকল্পনা দিবসের মূল প্রতিপাদ্য ছিলো ‘অন্তর্ভুক্তিমূলক নগর ও জনবসতি’। কর্মসূচির মধ্যে ছিলো র‌্যালি ও আলোচনা সভা। ড. সত্যেন্দ্রনাথ বসু একাডেমিক ভবনের ইউআরপি ডিসিপ্লিনের লেকচার থিয়েটারে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. শেখ মোঃ মুরসালিন মামুনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। তিনি বলেন আদর্শ নগর গড়ে তুলতে হলে সত্যিকারঅর্থে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের বিকল্প নেই। নগরায়নের প্রভাবে সেখানকার জীব-বৈচিত্র্য ও ঐতিহ্যগুলো যেন হারিয়ে না যায়। তিনি বলেন আদি সভ্যতার প্রাচীন নিদর্শন বা সূচক হচ্ছে নগর। হরপ্পা মহেঞ্জোদারোর মতো অতিপ্রাচীন নগর দক্ষিণ এশিয়ার প্রাচীন সভ্যতার পরিচয় বহন করে। তিনি আরও বলেন নানা সুবিধার কারণেই সারাদুনিয়াতে মানুষ শহরমুখি। নতুন নতুন শহর গড়ে উঠছে, আবার অনেক শহর ব্যাপকভাবে বিস্তৃত হচ্ছে। আধুনিক ছোঁয়া লাগছে নগর সমৃদ্ধিতে। কিন্তু আধুনিক নগরায়নের ফলে স্বস্তির যেমন দিক রয়েছে, তেমনি অস্বস্তিও বেড়েছে। জলবায়ুগত পরিবর্তনের কারণে অনেক নগর এখন ঝুঁকিপূর্ণ, সেখানে মানুষের জীবনও বিপন্ন হচ্ছে। তাই পরিকল্পিত নগরায়নের বিকল্প নেই। পরিকল্পিত নগরায়নের ক্ষেত্রে বাঁধাসমূহ চিহ্নিত করে তার প্রতিকার করা জরুরী। সরকার পরিকল্পিত নগরায়ন চায়। কিন্তু আমরা দেখি অনেক স্থানে ভূমি দস্যু ও প্রভাশালীরা নানাভাবে বাঁধা দেয়। অনেক সরকারি খাল, জায়গা দখল করে অবৈধ স্থাপনা গড়ে তোলে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করে। এরফলে পরিকল্পিত নগরায়ন বাঁধাগ্রস্ত হয়। নগরবাসীর দুর্ভোগ বাড়ে।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক ও বিআইপি খুলনা চ্যাপ্টারের সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ আশরাফুল আলম এবং ডিভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিন প্রধান কাজী হুমায়ুন কবীর। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিআইপি খুলনা চ্যাপ্টারের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি রায়। এর আগে সকাল ১১ টায় ডিসিপ্লিনের উদ্যোগে ক্যাম্পাসে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। এ সময় সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।